1. admin@bsbanglatv.com : admin :
  2. bsbanglatv2020@gmail.com : Shamim Hasan Khan : Shamim Hasan Khan
মহেশখালীতে ফকিরাকাটা বেড়িবাঁধ সড়ক নির্মাণে ব্যাপক অনিয়মের অভিযোগ - BS BANGLA TV
বিজ্ঞপ্তি :

বিএস বাংলা(আইপি টিভি) এর সংবাদ সংগ্রহ করার জন্য দেশ-বিদেশ, সকল জেলা-উপজেলা, থানা ও ক্যাম্পস পর্যায়ে কর্মঠ, সৎ ও সাহসী সংবাদদাতা/প্রতিনিধি নিয়োগ করা হবে। বিএস বাংলা(আইপি টিভি) প্রতিনিধি নিয়োগের আবেদন আহ্বান করা হচ্ছে।বিএস বাংলা(আইপি টিভি) সমাজে জনপ্রিয়তা পেয়েছে। পাঠকের সংখ্যায় প্রতিনিয়ত যোগ হচ্ছে নানা শ্রেণি-পেশার হাজারো মানুষ। বস্তুনিষ্ঠ সংবাদ পরিবেশনে প্রতিষ্ঠানটিতে কাজ করছে তরুণ, অভিজ্ঞ ও আন্তরিক সংবাদকর্মীরা। এরই ধারাবাহিকতায় বিএস বাংলা(আইপি টিভি) এর নিয়োগ প্রক্রিয়ার এ ধাপ।এ ক্ষেত্রে যারা উদ্যমী, সব সময় নতুনত্বকে পছন্দ করে, তথ্য ও সত্যকে আবিস্কার করতে চান, জনদুর্ভোগ নিয়ে কথা বলতে চান অন্যায় অত্যাচার ও দুর্নীতির বিরুদ্ধে সোচ্চার এবং অবশ্যই স্মার্ট মোবাইল ফোন ব্যবহারে পাদর্শী মূলত তাদের কাছ থেকেই আমরা এই আবেদন করছি।বিএস বাংলা(আইপি টিভি)-এ আপনার প্রতিনিধিত্ব মূলত একটি স্বেচ্ছাশ্রমমূলক কাজ যার মাধ্যমে সমাজ ও জনকল্যাণমূলক কাজের প্রতিনিধিত্বের পাশাপাশি দেশের আপামর জনতার কাছে আপনার জেলা/উপজেলা/ক্যাম্পাসের সঠিক ও বস্তুনিষ্ঠ সংবাদ পৌছাবে।নিয়োগপ্রাপ্ত জেলা/উপজেলা/ক্যাম্পাস প্রতিনিধিদের নিয়মিত সম্মানী বাবদ প্রতিনিধিদের নিজের পাঠানো বিজ্ঞাপনের আয়ের ৬০% মাসিক বেতন আকারে দেয়া হবে।আবেদন প্রক্রিয়া:প্রার্থীর জীবনবৃত্তান্ত ও সদ্য তোলা পাসপোর্ট সাইজের ছবিসহ আবেদন করতে হবে-বিএস বাংলা(আইপি টিভি).বি:দ্র: বিএস বাংলা(আইপি টিভি) কোন গ্রুপ কোম্পানির অর্থ বা কোন স্পন্সরের অর্থ দ্বারা পরিচালিত নয়। নিজস্ব আয়ে পরিচালিত হয়। প্বিএস বাংলা(আইপি টিভি)কে নিজের ভাবতে পারলেই আবেদন করবেন। বিস্তাতির জানতে ভিজিট করুন। www.bsbanglatv.com

মহেশখালীতে ফকিরাকাটা বেড়িবাঁধ সড়ক নির্মাণে ব্যাপক অনিয়মের অভিযোগ

  • প্রকাশিত : Monday, February 22, 2021
  • 36 জন দেখেছেন

মোঃ সাহাব উদ্দিন কক্সবাজার জেলা প্রতিনিধি। মহেশখালী উপজেলার বড় মহেশখালীর ফকিরাকাটা বেড়িবাঁধ সড়কের ২কিলোমিটার সড়ক নির্মাণকাজে ব্যাপক অনিয়মের অভিযোগ উঠেছে। আজ ২২শে ফেব্রুয়ারি মহেশখালী প্রকৌশলী অফিস (এলজিইডি) সূত্র জানা যায়, গত অর্থবছরে আগস্টে বড় মহেশখালীর ফকিরাকাটা বেড়িবাঁধ সড়কটি নির্মাণের জন্য টেন্ডার আহ্বান করা হয়। সড়ক নির্মাণে বরাদ্দ ধরা হয় ১ কোটি ৩০ লাখ টাকা। টেন্ডারে কাজটি পায় মেসার্স আইয়ুব কন্সটাকশন নামে এক ঠিকাদারী প্রতিষ্টান। যার মালিক পার্শ্ববর্তী চকরিয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সেক্রেটারি ও ফাঁসিয়াখালী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ঠিকাদার গিয়াস উদ্দিন। স্থানীয়সূত্রে জানা যায়,কয়েকদিন আগে সড়ক নির্মাণের কাজ শুরু করে। কাজের শুরুতে নিম্নমানের ইট,বালু দিয়ে কাজ শুরু করলে স্থানীয়রা বাঁধা দিলেন তোপের মুখে পড়ে ঐ ঠিকাদারি প্রতিষ্টান। পরে মহেশখালী ইঞ্জিনিয়ার সহ সংশ্লিষ্ট কাজে জড়িতরা এসে কিছু নিম্নমানের ইট ফেরত দেয় এবং কাজ সঠিক ভাবে করার জন্য ঠিকাদারকে সর্তক করেন বলে জানান স্থানীয়রা। কিন্তু কে শুনে কার কথা? আবারও নিম্মমানের ইট আর বালু দিয়ে চালিয়ে যাচ্ছে সড়ক নির্মাণের কাজ। মহেশখালী এলজিইডির নাম প্রকাশ অনিচ্ছুক একজন উপ-সহকারী প্রকৌশলী জানান, ‘সরকারি নীতিমালা অনুযায়ী সড়কের বেডকাটিং করার পর ৬-৭ ইঞ্চি বালু ফেলে মজবুত করতে হবে। এরপর হাফ ইঞ্চি পর পর ইটের সলিং বিছিয়ে তারপর বালু দেয়া হয়। বালুর ওপরে এক নাম্বার ইট দিয়ে হেরিংবন্ড সম্পন্ন করতে হবে। কোনো অবস্থাতে সলিং হাফ ইঞ্চির বেশি কিংবা দুই নম্বর ইট ব্যবহার করা যাবে না’। কিন্তু দেখা যায় যেখানে বালু দিচ্ছে ৫ থেকে সাড়ে ৫ইঞ্চি।আর কিছু নিম্নমানের ইট ব্যবহার করতে আনলে আমরা তা ফেরত দিই এবং ঠিকাদারকে সর্তক করি। সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, ঠিকাদার তড়িঘরি করে হাফ ইঞ্চির জায়গায় এক ইঞ্চি থেকে দুই ইঞ্চি গ্যাপ রেখে এবং কিছু নিম্নমানের ইট দিয়ে সলিং নির্মাণের কাজ করছেন। এমনকি সলিং নির্মাণের সঙ্গে সঙ্গে বালু দিয়ে সলিং ঢেকে দিয়ে হেরিংবন্ডের কাজ করতেছেন। ঠিকাদার প্রতিষ্টানের হয়ে কাজ করা শ্রমিকের মাঝি কামাল হোসেন জানান, কাজ শুরুতে কিছু নিম্নমানের ইট ব্যবহার হয়েছে কিছু ইট ফেরত দেওয়া হয়েছে। আর এখন ইটের স্তুপে যে দেড় নাম্বার বা নিম্মমানের ইট দেখা যাচ্ছে তা রাস্তার নিচে ঢুকে দেওয়ার জন্য নির্দেশনার কথা জানান এবং সেই মতেই কাজ হচ্ছে বলেন। তিনি আরও বলেন নিম্নমানের ইট ব্যবহারের কারণে কিছু স্থানীরা এসে কাজে বাঁধা দিয়ে ছিল পরে ঠিকদারসহ স্থানীয় কিছু রাজনৈতিক ব্যক্তির সাথে কথা বলে সবকিছু ঠিকঠাক করে আবারও রাস্তার কাজ চলতেছে বলে জানান। বড় মহেশখালীর ফকিরাকাটার ফরিদুল আলম জানান, বেড়িবাঁধ বাসী অনেক দিন পর একটি সড়ক পেয়েছি। কিন্তু যে ভাবে অনিয়ম করে দুই নাম্বার ইট দিয়ে রাস্তা তৈরী করতেছে তা নিমিষেই নষ্ট হয়ে যাবে। এর জন্য আমরা স্থানীয়রা প্রতিবাদ করলেও কাজ হচ্ছে না। একই এলাকার সেকান্দরের পূত্র রশিদ জানান, শুরুতেই নিম্নমানের ইট ব্যবহারের কারণে বাঁধা দিলে কিছু দুই নাম্বার ইট ফেরত পাঠান ইঞ্জিনিয়ার, আবারও তারা নিম্নমানের ইট ও বালু ব্যবহার করে তড়িঘড়ি করে রাস্তা তৈরি করেই চলছে। নুর আহমদের পূত্র এনাম বলেন এই সড়কটি দীর্ঘদিন থেকে অবহেলিত। সড়কটির নির্মাণকাজ সঠিকভাবে করার কথা থাকলেও তা করা হয়নি। আমরা ঠিকাদারকে নিম্নমানের ইট দিয়ে কাজ করতে নিষেধ করলেও তিনি মানছেন না। এভাবে কাজ করার ফলে সড়কটি দ্রুত নষ্ট হয়ে যেতে পারে। আমরা এ ব্যাপারে প্রশাসনের হস্তক্ষেপ চাই। ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানের মালিক চকরিয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক গিয়াস উদ্দিন চেয়ারম্যান সড়ক নির্মাণ কাজে নিম্নমানের ইট ব্যবহার করার কথা অস্বীকার করে বলেন, ভাটা থেকে ইট নিয়ে আসার সময় কিছু খারাপ ইট আসতে পারে। নিম্নমানের দুই গাড়ি ইট ফেরত দেওয়ার কথা জানতে চাইলে তিনি সে বিষয়ে অবগত নয় বলে জানান। মহেশখালী উপজেলা প্রকৌশলী সবুজ কুমার দে বলেন, রাস্তার কাজ শুরুর দিকে দুই গাড়ি নিম্নমানের ইট আনলে তা আমরা সাথে সাথে ফেরত দিই এবং নিম্মমানের কোন কাজ করা যাবে না বলে ঠিকাদারকে সর্তক করি। সড়ক নির্মাণে তদারকি আরও বাড়ানো হয়েছে। আমার কাজ যে রকম নির্দেশনা আছে সেরকম বুঝিয়ে নেওয়া হবে। কাজে কোন রকম অনিয়ম পেলে আমরা কাজ বুঝিয়ে নেব না এবল বিল আটকিয়ে দেওয়া সহ প্রশাসনিক ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরো সংবাদ
© All rights reserved © 2020 BS BANGLA TV

প্রযুক্তি সহায়তায় একাতন্ময় হোস্ট বিডি