পাগলা বাবার আত্মপ্রকাশ তার পরিচয় দিতে গিয়ে কি বল্লেন নিজেই পরে দেখুন

পাগলা বাবার আত্মপ্রকাশ তার পরিচয় দিতে গিয়ে কি বল্লেন নিজেই পরে দেখুন

বানীঃ পাগলা বাবা

হে মাননজাতি,,বিশ্ববাসী,, সত্য আমার আল্লাহর বানী,,এই সময়,বাস্তব কখনও অশ্বিকার করা যায় না,,আমি সত্যই বাস্তব এসেছি, পৃথিবীতে,, তিনিই বর্তমান,,তিনি জলে স্হলে আকাশে,বাতাসে সর্বত্র বিরাজ করছেন। তাঁর হুকুমে আঠারো হাজার মাখলুকাত চলছে। আদিতেও তিনিই ছিলেন, বর্তমানেও তিনিই আছেন এবং অনাদির আদি তথা অনন্ত পর্যন্ত তাঁরই লীলা খেলা চলবে। হে মানব সম্প্রদায় কে বিশেষভাবে বুঝে নিতে হবে যে,খিজির কোন ব্যক্তি বিশেষ নন কিন্তুু হযরত বিলিয়া (আঃ) বা হযরত মুহাম্মদ (সঃ) ব্যক্তি বিশেষ।কিন্তুু নুরে মুহাম্মদী ব্যক্তি বিশেষ নন।খিজির হলেন হুজুর(সঃ) এর তিফৃলুল মা’আনী বা খোদাতত্ত্ব জ্ঞানের নবজাত শিশু।যাঁর সম্পর্কে হুজুর (সঃ)বলেছেন
“রা আইতু রাব্বি আলা সুরাতি সাব্ বুন আমরুদ” অর্থাৎ আমি আমার প্রভুকে দাড়ী গোঁফ বিহীন একজন বালকের ন্যায় দেখেছি।যার অর্থ তিফলুল মা ‘আনী।অর্থাৎ রূহ রূপ দর্পণে জোর্তিময় আকৃতি।এ সম্পর্কে হুজুর (সঃ ) বলেছেন, “আল ইনসানু সিররী ওয়া আনা সির্ রাহু” অর্থাৎ মানবজাতি আমার গুপ্ত রহস্য।।
তাহলে প্রত্যেকটি ইমানদারকে হিসেব করতে হবে যে,কেন তিনি মানব জাতির গুপ্ত রহস্য।হাদীসে কুদছিতে আল্লাহ তায়ালা বলেন,”লাও লাকা লামা খালাক্ তুল আফলাফ” অর্থাৎ আপনাকে সৃষ্টি না করলে আমি বিশ্ব জগৎ সৃষ্টি করতাম না।। হুজুুর (সঃ) বলেছেন “আমি মুহাম্মদ,আমি আহমাদ,আমি বিলুপ্তকারী, আমার সাহায্যে কুফরকে বিলুপ্ত করা হবে। আমি সমবেতকারী আমার পরে লোকদের হাশরের ময়দানে সমবেত করা হবে। আজ ১৪ শত হিজরী পার,, ১৪৪২ হিজরী পার করলাম,বহু নামে,,এই ধরা ধামে এসেছি সত্যকে গোপনকারী দাজ্জাল,,৪০ বছরে আহলে হতে খলিফা লাভ,,চিরসত্য,, খলিফা পাগলা বাবা,, আবু বক্কর সিদ্দিক,, মা,,আমেনা, পিতা,,আব্দুল্লাহ,,,
জন্ম উদয়বিষ্ণুপুর
কুমারখালী।।কুষ্টিয়া এতদিন গোপন,, করে রেখেছিলাম,আমার আল্লাহর হুকুমে আজ ২০শে ফাল্গুন ৪১৪২ হিজরি আমি প্রকাশ করলাম,,লাইএলাহা,,,,,,,৷ সঃ৷,,
পৃথিবী জুড়ো একটিই মাত্র জাতি সে হলো মানবজাতি,,
আল্লাহর মনোনীত ধর্মই ইসলাম ও আল্লাহর পরিচয়,
৭২ফেরকা আর নয়,,
কূফরীকে শেষ করার জন্য আল্লাহর তলোয়ার ও আল্লাহর ঢাল আমার সামনে। বাস্তব কখনও অশ্বিকার করা যায় না। বাস্তব সত্য, গোপনকারী ও অশ্বিকার কারী দাজ্জাল।।

শেয়ার করে অন্যদের দেখার সুযোগ করে দিন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *